পরকীয়া করায় স্ত্রীকে শ্বাসরোধে হত্যা করলো স্বামী

গাজীপুরে এক গৃহবধূকে শ্বাসরোধ করে হত্যার অভিযোগে মা রতœা বেগম ও স্বামী নয়ন মিয়াকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। নিহত নীলা খাতুন (২০) শেরপুর জেলার শ্রীবর্দী থানার চরপাড়া

এলাকার হাবিব উল্লাহর ছেলে নয়ন মিয়ার স্ত্রী এবং তার বাবার বাড়ি পাবনার চাটমোহর থানার বিন্নাবাড়ি গ্রামে। স্ত্রীর বিরুদ্ধে স্বামীর আনা পরকিয়ার অভিযোগে মায়ের শাষনকালে সোমবার রাতে এ হত্যার ঘটনা ঘটেছে।

বাসন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এ কে এম কাউসার চৌধুরী জানান, গত এক বছর আগে শেরপুর জেলার শ্রীবর্দী থানার চরপাড়া এলাকার হাবিব উল্লাহর ছেলে নয়নের সঙ্গে নীলার বিয়ে হয়। নয়নের দ্বিতীয় স্ত্রী নীলা। কয়েক মাস আগে নয়ন গাজীপুর মহানগরের মোগরখাল এলাকার মো. কবির হোসেনের বাড়িতে স্ত্রীকে নিয়ে বাসা ভাড়া নেন।

নীলার মা রত্না পাশের চান্দনা এলাকায় সপরিবারে বাসবাস করেন এবং স্থানীয় এক পোশাক কারখানায় চাকরি করেন। সম্প্রতি স্ত্রী নীলার পরকীয়া নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে দাম্পত্য কলহ শুরু হয় এবং সম্পর্কের অবনতি দেখা দেয়। এ বিষয়ে নয়ন তার শাশুড়ি রত্না কাছে অভিযোগ করেন।

সোমবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে রত্না কারখানা ছুটি শেষে নিজ বাসায় না গিয়ে সরাসরি মেয়ের বাসায় যান। পরে নয়নের সামনে পরকীয়ার বিষয় নিয়ে মেয়ের সঙ্গে মায়ের কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে রত্না উত্তেজিত হয়ে মেয়ের গলায় থাকা ওড়না টেনে ধরে। এ সময় নীলা শ্বাসরোধ হয়ে মাটিতে লুটে পড়েন। পরে তাকে উদ্ধার করে শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। পরে রাতেই পুলিশ রত্না ও নয়নকে আটক করে। মরদেহ ময়না তদন্তের জন্য গাজীপুর শহীদ তাজ উদ্দিন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হযৈছৈ। তাদের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে।