বিচার বিভাগীয় তদন্তের মাধ্যমে অপরাধির শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে সার্ক মানবাধিকার ফাউন্ডেশন

ফেনীর সোগাজীতে আগুনে ঝলসে দেওয়া মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফির বিচার বিভাগীয় তদন্তের মাধ্যমে অপরাধির শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে এবং তার সঙ্গে দুর্ব্যবহারকারী পুলিশ সদসদ্যদের শাস্তির দাবি জানিয়েছেন সার্ক মানবাধিকার ফাউন্ডেশন এর মহাসচিব অধ্যাপক মাওলানা মোহাম্মদ আবেদ আলী। একসময় অন্য অপরাধের আড়ালে এই ঘটনার সঠিক বিচার হবেনা তাই এমন নৃশংসতা ঘটছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি
১২ এপ্রিল সকালে জাতীয় প্রেস ক্লাব সম্মূখে সার্ক মানবাধিকার ফাউন্ডেশনের মহাসচিব আরো বলেন, নির্যাতিত নুসরাত থানায় গিয়েছিলো প্রতিকার পেতে। কিন্তু অভিযোগ উঠেছে থানা পুলিশ তাকে অসম্মান করেছে। এটি অত্যন্ত দুঃখজনক ও শাস্তিযোগ্য। ইতিমধ্যে থানার ওসিকে প্রত্যাহার করা হলেও বিষয়টি তদন্ত সাপেক্ষে সেই পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া রাষ্ট্রের দায়িত্ব। নিহত মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত অন্যায়ের প্রতিবাদ করে গেছে। সে সাহসী নারীদের কাছে দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে, আমরা তার কাছ বেঁচে থাকার, প্রতিবাদ করার শিক্ষা পাই।
আবেদ আলী আরো বলেন, অপরাধের সঠিক বিচার হচ্ছে না বলেই এমন নৃশংসতা… আমরা দেখেছি অভিযুক্ত অধ্যক্ষ হাসিমুখে কথা বলছেন, তার মধ্যে কোনো অনুশোচনা নেই। বিচারহীনতার সংস্কৃতির কারণেই অপরাধীরা এমন সাহস পাচ্ছে।