‘বিশ্ব নেতারাও শেখ হাসিনাকে আবার ক্ষমতায় দেখতে চায়’

শুধু দেশের মানুষই নয়, উন্নয়নে বিস্মিত বিশ্ব নেতারা বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনাকে আবারও ক্ষমতায় দেখতে চায় বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য, ১৪ দলের মুখপাত্র ও স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম।

মঙ্গলবার দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ার মধ্যে পাবনার পূর্বনির্ধারিত কর্মসূচি বাতিল করে তার নির্বাচনী এলাকা কাজিপুরে আকস্মিক গণসংযোগে মাঠে নামেন তিনি। তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুকন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বের কোনো বিকল্প নেই। সিরাজগঞ্জসহ সারা দেশে নৌকার গণজোয়ার সৃষ্টি হয়েছে। নৌকার বিজয় হবেই হবে। উন্নয়ন ও জনগণের ভালোবাসা নিয়ে আওয়ামী লীগ আবারও সরকার গঠন করবে ইনশাআল্লাহ।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম সরকারি প্রটোকল ছাড়াই ব্যক্তিগত নিরাপত্তা, পতাকাবিহীন ব্যক্তিগত গাড়ি নিয়ে তার নির্বাচনী এলাকা কাজিপুর ও সিরাজগঞ্জের গণসংযোগে অংশ নেন।

তিনি গণসংযোগকালে নিজে ভোটারের কাছে বিনয়ের সঙ্গে ভোট প্রার্থনা করে বলেন, আওয়ামী লীগ দেশকে উন্নয়নের ধারায় এগিয়ে নিয়ে গেছে। গত ১০ বছরে দেশে অভাবনীয় সাফল্য অর্জিত হয়েছে। আওয়ামী লীগ ছাড়া সিরাজগঞ্জ, কাজিপুরসহ এ দেশে দৃশ্যমান উন্নয়ন কেউ করেনি। বঙ্গবন্ধুকন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা উন্নয়ন করেছেন। আর এই উন্নয়নের বিনিময়ে নৌকা মার্কায় একটি করে ভোট প্রার্থনা করেন। তিনি তার কর্মীদেরকেও বিনয়ের সঙ্গে জনগণের কাছে ভোট চাওয়ার আহ্বান জানান।

বিজয়ের মাস ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচনে মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তি আওয়ামী লীগকে ভোট দেয়ার আহ্বান জানিয়ে মোহাম্মদ নাসিম আরও বলেন, বাংলার মানুষ বিশ্বাস করে বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা ছাড়া উন্নয়নের কোনো বিকল্প নেই। গত ১০ বছরে বঙ্গবন্ধুকন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার দেশকে অন্ধকারের চোরাগলি থেকে উন্নয়নের আলোয় আলোকিত করেছেন। দেশের মানুষ শান্তি ও স্বস্তিতে বসবাস করছে।

মোহাম্মদ নাসিম কাজিপুরের পাঁচগাছি, সোনামুখী, সিরাজগঞ্জ সদরের ভেন্নাবাড়ি এলাকায় গণসংযোগ করে সন্ধ্যায় জেলা সদরে সিরাজগঞ্জ-২ (সদর-কামারখন্দ) নির্বাচনী এলাকায় নৌকা প্রতীকের প্রার্থী অধ্যাপক ডা. হাবিবে মিল্লাত মুন্নার পক্ষে দ্বিতীয় দিনের মতো গণসংযোগ করেন।

তিনি শহরের ভিক্টোরিয়া কোয়াটারে জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য, সাবেক যুবলীগের সভাপতি সদ্য প্রয়াত অ্যাডভোকেট গোলাম হায়দারের বাসায় যান এবং তার শোকসন্তপ্ত পরিবারকে সান্ত্বনা দেন।

এ সময় অ্যাডভোকেট কেএম হোসেন আলী হাসান, পৌর মেয়র সৈয়দ আব্দুর রউফ মুক্তা, হাজী ইসহাক আলী, আব্দুল বারী শেখ, অ্যাডভোকেট আব্দুর রউফ পান্না, বদরুল আলমসহ আওয়ামী লীগ ও তার অঙ্গসহযোগী-সংগঠনের নেতারা উপস্থিত ছিলেন।