পাকিস্তানকে হারিয়ে যুব এশিয়া কাপের সেমিতে বাংলাদেশ

মার্জিং এশিয়া কাপের প্রথম ম্যাচে আরব আমিরাতে বিপক্ষে ৯৭ রানের বিশাল ব্যবধানে হারতে হয়েছিল বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব ২৩ দলকে। যদিও ‘বি’ গ্রুপের নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে হংকয়ের বিপক্ষে ঘুরে দাঁড়ায় নূরুল হাসান সোহান নেতৃত্বাধীন দলটি। রোববার গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে স্বাগতিক পাকিস্তান অনূর্ধ্ব ২৩ দলকে হারিয়েছে বাংলাদেশের যুবারা। এতে পর পর দুই ম্যাচে দুর্দান্ত পারফরম্যান্স করে ম্যাচ সেরা হয়েছেন মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত। ডান-হাতি এই অলরাউন্ডার দলকে পৌঁছে দিয়েছেন সেমিফাইনালে। করাচির জাতীয় স্টেডিয়ামে এদিন টস জেতে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয় জুনিয়র টাইগাররা। দুই ওপেনার মিজানুর রহমান ৪৪ বলে ২৫ ও ৬৯ বলে ৬৯ রান করেন জাকির হোসেন। ৫৪ বলে ৪৯ রানের ইনিংস খেলেন নাজমুল হোসেন শান্ত। এদিকে মাত্র ৭৪ বলে অপরাজিত ৮৫ রান তুলে নেন মোসাদ্দেক হোসেন। ১০ বলে ৬ রান সংগ্রহ করেন আফিফ হোসেন, ৪৬ বলে ৫৬ রান করেন ইয়াসির আলি। এছাড়া ৪ বলে অপরাজিত ৮ রান করেন অধিনায়ক সোহান।নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৩০৯ রানের বিশাল সংগ্রহ করতে সক্ষম হয় লাল-সবুজরা। পাকিস্তানের বোলারদের হয়ে খুশদিল শাহ তিনটি আর মোহাম্মদ মুসা নেন দুটি উইকেট।ব্যাটহাতে নামার পর নাঈম হাসানের ঘূর্ণির কবলে পড়তে হয় স্বাগতিকদের। ৪৬.৫ ওভার পর্যন্ত ব্যাট করে ২৩৫ রানে অলআউট হয় পাকিস্তান দল। এতে ৮৪ রানের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে বাংলাদেশের ছেলেরা।সর্বোচ্চ ৬১ রান তুলেন খুশদিল। ওপেনার জিশান মালিক ৪৭ ও পাকিস্তান অধিনায়ক মোহাম্মদ রিজওয়ান ৪৬ রান করেন। এই তিন ব্যাটসম্যান ছাড়া কেউই উল্লেখযোগ্য স্কোর করতে পারেননি।টাইগার জুনিয়রদের হয়ে তিনটি উইকেট তুলে নেন নাঈম। দুটি করে উইকেট শিকার করেন মোসাদ্দেক ও শফিউল ইসলাম। একটি করে উইকেট লাভ করেন তানভির ইসলাম, শরিফুল ইসলাম ও আফিফ হোসেন।এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিলের অধীনে এবারের ইমার্জিং এশিয়া কাপে ‘এ’ গ্রুপের খেলা শ্রীলঙ্কার কলম্বোতে ও  ‘বি’ গ্রুপের খেলা পাকিস্তানের করাচিতে আয়োজিত হলো। এশিয়ার টেস্টে খেলুড়ে পাঁচ দেশের অনূর্ধ্ব-২৩ দল এবং সহযোগী দেশগুলো জাতীয় দল অংশ নিচ্ছে এই টুর্নামেন্টে। তবে অনূর্ধ্ব-২৩ বলেও ২৩ বছরের বেশি মোট চারজনকে রাখতে পারবে টেস্ট খেলুড়ে দলগুলো।‘এ’ গ্রুপ থেকে ভারত ও শ্রীলঙ্কার অনূর্ধ্ব ২৩ দল পৌঁছেছে সেমি ফাইনালে। অন্যদিকে ‘বি’ গ্রুপে থেকে বাংলাদেশ ও পাকিস্তানের অনূর্ধ্ব ২৩ দল শেষ চারে জায়গা করে নিয়েছে।ৎআগামী ১৩ ডিসেম্বর দুটি সেমিফাইনালের জয়ীরা ১৫ ডিসেম্বর ফাইনালে মুখোমুখি হবে। এই ম্যাচ তিনটিই বসবে কলম্বোর আর. প্রেমদাসা স্টেডিয়ামে।