বাউফলে শালিশ চলাকালে চাচাকে কুপিয়ে জখম করেছে ভাতিজা।

বাউফলে পারিবারিক ঘটনাকে কেন্দ্র করে আপন চাচিকে মারধর এবং চাচাকে কুপিয়ে জখম করেছে ভাতিজা।শনিবার(১১ জানুয়ারি ২০২১) সন্ধা ৭.৩০ টার দিকে উপজেলার নাজিরপুর ইউনিয়নের নিমদি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।স্থানীয়সূত্রে জানা যায় শনিবার দুপুর ১১.৩০ টার দিকে কথার কাটাকাটিতে মামুন তার ছোট চাচিকে মারধর করে। বিষয়টি এলাকায় জানাজানি হলে ৩ নং ওয়ার্ডের আওমীলীগ সভাপতি মোঃ আলতাফ মৃধা, হাসান মল্লিক এবং আরও গন্যমান্য ব্যাক্তিদের নিয়ে সন্ধা ৭.৩০ টার সময় শালিণ মিমাংশায় বসে । আলতাফ মৃধা বলেন মাকে ভাগাভাগি নিয়ে এ ঝগড়া আমরা স্থানীয় ভাবে ব্যাপারটা মিলমিশ করে দেব বলে বসেছি কিন্তুু এরা আমাদেরকে উপেক্ষা করে আবার আমাদের সামনেই মামুন উত্তেজিত হয়ে মামুন সহ আরও বাকি আসামিরা মিলে ফিরোজ রাঢ়ী ও তার স্ত্রীর উপর হামলা চালায়, এবং ঘরবাড়ী ভাংচুর করে। মামুন দা দিয়ে ফিরোজ রাঢ়ীর মাথায় কোপ দেয় দ্বিতীয় কোপ দিতে গেলে নয়ন ব্যাপারী সামনে পড়ে মারপিট ছাড়াতে গিয়ে নয়ন ব্যাপারির মাথায় ও কোপ পড়ে। এলাকার লোকজন এসে তাদেরকে উদ্ধার করে বাউফল সাস্থ্য কমপ্লেক্সে পঠান। এ ব্যাপারে ফিরোজ রাঢ়ী বাদী হয়ে ছয় জনকে আসামি করে বাউফল থানায় একটি এজাহার দায়ের করেন।