ভোলার বাপ্তায় লাল শরীফের ভাঙ্গারির দোকানে হামলা ও লুট করার অভিযোগ।

মোঃইব্রাহীম সোহেল,ভোলা।।
ভোলা সদর উপজেলার বাপ্তা ইউনিয়নের ভদ্রগো পোল সংলগ্ন লাল শরীফের ভাঙ্গারির দোকানে ওই এলাকার মোঃ শাহ আলমের ছেলে রুবেল গংদের বিরুদ্ধে উক্ত দোকানের মালিক মোঃ শামীম হোসাইনের উপর হামলা ও দোকান লুট করার অভিযোগ উঠেছে।

মোহাম্মদ শামীম জানান
শনিবার ১০ অক্টোবর বিকেল ৪ টার সময় আমি দোকানে বসে কাজ করতেছি।
এমন সময় শাহ আলমের ছেলে রুবেল, মোঃ শাহ আলমের ছেলে বাবলু ও আফ্রিদিসহ আমার দোকানে এসে কবুতরের খাঁচা চায় আমি বললাম একটু দাঁড়ান আমি কাজটা শেষ করে এসে খাঁচা দেখাচ্ছি।
আমি দু মিনিটের মধ্যে কাজ শেষ করে খাঁচা দেখালাম তখন উক্ত ব্যক্তিরা আমার খাঁচা দুটো রাস্তায় ছুঁড়ে ফেলেদেয় আমি যখন বললাম খাঁচা গুলো তুলে দিতে তখন আমাকে রাগ দেখিয়ে তারা চলে যায়।
কিছুক্ষণ পর তাদের সাথে হারুনের ছেলে আরমান, মনিরের ছেলে জিহাদসহ ১০/১২ জন এসে আমার দোকানের ভিতরে ঢুকে আমার উপর মারধর শুরু করে ।
আমার দোকানে থাকা ক্যাশ টাকা ৩০৪৫০০টাকা উক্ত ব্যক্তিরা ছিনিয়ে নিয়ে যায়।
পরে স্থানীয় লোকেরা এসে আমাকে গুরুতর অবস্থায় সদর হাসপাতালে ভর্তি করান।
আমি প্রশাসনের কাছে তদন্তের মাধ্যমে এর সঠিক বিচার চাই।
এ ব্যাপারে উক্ত ব্যক্তির সাথে যোগাযোগ করতে গেলে যোগাযোগ
তাদের পাওয়া যায়নি।