আওয়ামীলীগ সন্ত্রাসীদের পছন্দ করেনা- আ.স.ম ফিরোজ।।

বাউফল প্রতিনিধি : বাউফল উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাবেক চীফ হুইপ আ.স.ম. ফিরোজ বলেছেন, সন্ত্রাস করে আওয়ামী লীগের অগ্রযাত্রাকে দুর্বল করা যাবে না। আওয়ামী লীগ বাংলাদেশের আপামোর জনগণের দল। এই দলে সন্ত্রাসের কোন স্থান নেই। ঐক্যবদ্ধভাবে সন্ত্রাসকে রুখে আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে দেশকে এগিয়ে নিতে হবে। আমাদের প্রধানমন্ত্রী সেই লক্ষ্যেই কাজ করে যাচ্ছেন। যারা দলের মধ্যে বিশৃংখলা সৃষ্টি করে দলের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করবেন তাদের স্থান কখনোই আওয়ামী হবে না। যারা দলের নাম ভাঙ্গিয়ে সন্ত্রাসি কার্যক্রম করে এবং নানা অপরাধের সাথে জড়িয়ে পড়ছে তাদের বিরুদ্ধে দল উপযুক্ত সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেবেন। সভার শুরুতে জাতীয় ও স্থানীয় পর্যায়ে আওয়ামী লীগের যে সকল নেতাকর্মী ইন্তেকাল করেছেন তাদের রুহের মাগফেরাত কামণা করে শোক প্রস্তাব গ্রহণ করা হয়। বেলা ১১ টায় উপজেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয় জনতা ভবনে অনুষ্ঠিত উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সভায় সভাপতির বক্তব্যে আ.স.ম. ফিরোজ এই মন্তব্য করেন। এসময় উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবদুল মোতালেব হাওলাদার, সহসভাপতি ও উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মোসারেফ হোসেন খানসহ কার্যনির্বাহী কমিটির সকল সদস্য উপস্থিত ছিলেন। সভায় যথাযথ মর্যাদায় ১৫ আগষ্ট জাতীয় শোক দিবস পালনের জন্য বিভিন্ন কর্মসূচী ঘোষণা করা হয়। এদিকে উপজেলার কেশবপুরে দলীয় বিশৃংখলার কারণে দুই যুবলীগ কর্মী খুন হওয়ার ব্যপারে ওই ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক মহিউদ্দিন লাভুর বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্টতার অভিযোগ উত্থাপণ হওয়ায় তাকে দল থেকে সাময়িক বরখাস্ত করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। একই সাথে দুই যুবলীগ কর্মী খুনের মূল কারণ উদঘাটন করার জন্য ছয় সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি করা হয়েছে। তদন্ত কমিটির প্রতিবেদন অনুযায়ি সাধারন সম্পাদকের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে সভায় জানানো হয়।