নাকের ছিদ্রে সরিষার তেল দিলেই ফিনিশ করোনা: রামদেব

করোনা মহামারি ঠেকাতে ভারতজুড়ে চলছে লকডাউন। কিন্তু এতেও বিস্তার কমছে, বরং প্রতিদিনই শত শত মানুষ নতুন করে এই ভাইরাসে আক্রান্ত হচ্ছেন। মারাও যাচ্ছে বহু মানুষ।

এই অবস্থায় করোনাভাইরাস পরীক্ষার সহজ উপায় বাতলে দিলেন ভারতের আলোচিত যোগগুরু বাবা রামদেব। সেই সঙ্গে বাড়িতে বসে করোনা দূর করারও ওষুধও দিয়েছেন তিনি।

সেই ওষুধ হলো রান্নাঘরে ঈষত্ লালচে, আপাত নিরীহ সরিষার তেল। তার দাবি, এই তেল নাকের ছিদ্রে দু’ফোঁটা করে দিলেই মরবে করোনাভাইরাস।

সম্প্রতি করোনা পরিস্থিতি নিয়ে একটি সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের আয়োজিত এক আলোচনা সভায় অংশ নিয়েছিলেন রামদেব। সেখানে তিনি দাবি করেন, বয়স্করা, বিশেষ করে যাদের হাইপার টেনশন ও হার্টের সমস্যা রয়েছে, তারা যদি ৩০ সেকেন্ড নিঃশ্বাস বন্ধ করে থাকতে পারেন, তবে বুঝে নিতে হবে তাদের শরীরে করোনা নেই।

একইভাবে, কম বয়সীদের ক্ষেত্রে ১ মিনিট শ্বাস বন্ধ রেখে এই পরীক্ষা চালানো যেতে পারে।

এরপর তিনি বলেন বলেন, যোগাসনের পাশাপাশি নাকের ফুটোয় দু’ফোঁটা সরিষার তেল দিলে, শ্বাসনালীতে থাকা করোনাভাইরাস পেটে চলে যাবে। আর সেখানে অ্যাসিডে জীবাণুগুলো মারা পড়বে।

এর আগে রামদেব করোনা তাড়াতে গোমূত্র পান করার পরামর্শ দিয়েছিলেন। তিনি নিজেও করোনাভাইরাসকে প্রতিরোধ করতে প্রচুর গোমূত্র পান করেছিলেন।

জানা যায়, অত্যধিক মাত্রায় গোমূত্র পান করার কারণে অসুস্থ হয়ে গত মাসে তাকে দিন কয়েক হাসপাতালে কাটাতে হয়েছিল।

এ খবর ছড়িয়ে পড়েছিল ভারতের বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে। যদিও রামদেবের তরফ থেকে এ খবরের সত্যতা স্বীকার করা হয়নি।

প্রসঙ্গত, কেবল রামদেব নয়, করোনা চিকিৎসার একের পর এক অদ্ভুত ও অবৈজ্ঞানিক চিকিৎসাপত্র বাতলে যাচ্ছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প থেকে শুরু করে মোদি পর্ন্ত।

ট্রাম্প সম্প্রতি করোনা আক্রান্তদের দেহে জীবাণুনাশক ইঞ্জেকশন পুশ করার কথা বলেছিলেন। এ নিয়ে গত কয়েকদিন ধরে সামাজিক মাধ্যমগুলোতে সমালোচনার ঝড় বয়ে যাচ্ছে। চিকিৎসা বিশেষজ্ঞরা সাফ জানিয়েছেন, ট্রাম্পের পরামর্শ মানলে মানুষের প্রাণহানিও অসম্ভব নয়।

এর আগে ভারতের প্রধানমন্ত্রী করোনা মোকাবেলায় দেশের লোকজনকে ভেষজ ওষুধ সেবনের পরামর্শ দিয়েছিলেন যার কোনও বৈজ্ঞানিক ভিত্তি নেই।