বরগুনায় সরকারি নিষেধাজ্ঞা অমান্য করায় ৫ জনকে অর্থদন্ড

র‌্যাব-৮, সিপিসি-১, (পটুয়াখালী ক্যাম্প), জেলা প্রশাসন এবং জেলা পুলিশ বরগুনার
যৌথ উদ্যোগে আজ ২৪ এপ্রিল শুক্রবার তারিখ সকাল আনুমানিক ৯ টা হতে দুপুর ১ টা পর্যন্ত বরগুনা জেলায় সদর এলাকায় অভিযান পরিচালনা করা হয়। এসময় সরকারি নিষেধাজ্ঞা
অমান্য করে অযথা ঘুরাঘুরি করা, দোকান খোলা রাখা, হোম কোয়ারেন্টাইন না মানা এবং
সামাজিক দুরত্ব বজায় না রাখা ইত্যাদির অপরাধে কাঁচা মালের দোকানদার মোঃ কালাম
মোল্লা (৫৫), পিতা-মৃত আঃ আলী মোল্লা, সাং- উকিল পাড়া, থানা- সদর, জেলা- বরগুনাকে
১,০০০/- টাকা, কাঁচা মালের দোকানদার মোঃ ফিরোজ হোসেন(৪০), পিতা- মৃত আকরাম
আলী, সাং-মাইটা, থানা- সদর, জেলা- বরগুনাকে ১,০০০/-, চায়ের দোকানদার মোঃ শহিদুল
ইসলাম (৪৫), পিতা- মৃত ফজলুল হক , সাং- বাজার সড়ক, থানা-সদর, জেলা-বরগুনাকে ১,০০০/-
টাকা, গার্মেন্টস এর দোকানদার মোঃ কালাম হোসেন (৪৫), পিতা- শাহজাহান , সাং-চত্তর
সড়ক বাজার , থানা- সদর, জেলা- বরগুনাকে ২,০০০/- টাকা, জন সম্মুখে সিগারেট খাওয়ায়
মোঃ মান্না মিয়া (৪০), পিতা- মোঃ মমতাজ উদ্দিন, সাং-কড়ইতলা, থানা- সদর, জেলা- বরগুনাকে
৩,০০/- টাকা, সর্বমোট ৫,৩০০/- টাকা অর্থদন্ড প্রদান করা হয়। এ সময় ভ্রাম্যমাণ আদালতের
নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ নিজাম উদ্দীন, সহকারী কমিশনার, জেলা প্রশাসকের
কার্যালয়, বরগুনা, বাংলাদেশ দন্ড বিধি আইনের ২৬৯/১৮৮ ধারা এবং ধুমপান নিরোধ আইন ২০০৫ এর ৪(২) ধারা মোতাবেক অর্থদন্ড দন্ড প্রদান করা হয়। উল্লেখ্য, করোনা ভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে জনসমাগম এড়ানো ও হোম কোয়ারেন্টাইন নিশ্চিত করার লক্ষ্যে সরকার নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য, মুদি দোকান ও ফার্মেসী ব্যতীত অন্যান্য সকল দোকান পাট বন্ধ রাখার জন্য নির্দেশনা প্রদান করলেও কিছু কিছু ব্যক্তি এবং দোকান মালিক এই নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে
চলছে বিধায় এই অভিযান পরিচালনা করা হয় বলে জানিয়েছেন পটুয়াখালী ক্যাম্পের কোম্পানী
অধিনায়ক, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার, মোঃ রইছ উদ্দিন