মাস্ক পরে লাজ ফার্মায় ডাকাতি

বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাসের কারণে কার্যত লকডাউন ঢাকা। সরকারের ঘোষিত সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে নগরবাসীকে ঘরে থাকতে বলা হচ্ছে। জরুরি সেবার প্রতিষ্ঠান ছাড়া বন্ধ সব প্রতিষ্ঠানই।

করোনার কারণে বিপর্যস্ত সাধারণ জনজীবন। এমন অবস্থার মধ্যেও দেশের বৃহত্তম ওষুধ বিক্রেতা প্রতিষ্ঠান লাজ ফার্মার একটি শাখায় অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে লুটের ঘটনা ঘটেছে।

গত রোববার রাত সাড়ে ১০টার দিকে রাজধানীর খিলগাঁও থানাধীন সি ব্লকের ৫৯৬ নম্বর ওষুধের দোকানে লুটের ঘটনা ঘটে।

মাত্র দুই-তিন মিনিটেই লাজ ফার্মার ওই দোকান থেকে দুই লাখ টাকা, মোবাইল ও অন্যান্য মূল্যবান জিনিসপত্র নিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা।

সোমবার এ ঘটনায় খিলগাঁও থানায় একটি মামলা হয়েছে। মামলা নম্বর ৪। মোহাম্মদ শরীফ খান নামে একজন এ মামলা দায়ের করেন।

এ ব্যাপারে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা খিলগাঁও থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আরসেল তালুকদার জানান, মামলার তদন্ত চলছে। কে বা কারা চুরির ঘটনা ঘটিয়েছে তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। ভিডিও ফুটেজ সংগ্রহ করা হয়েছে।

মামলার বাদী মোহাম্মদ শরীফ খান বলেন, পাঁচ-ছয়জন লাজ ফার্মার খিলগাঁও শাখায় চাপাতিসহ দেশীয় অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে ক্যাশ থেকে দুই লাখ টাকা, মোবাইল ও অন্যান্য মূল্যবান জিনিসপত্র নিয়ে গেছে মাত্র দুই মিনিটে। ডাকাতদল আমাদের স্টাফদের কাউকে আহত করেনি।

তিনি বলেন, খিলগাঁও থানায় অভিযোগ করা হয়েছে। ডাকাতরা গাড়ি নিয়ে এসেছিল। বিআরটিএতে গাড়ির নম্বর দেখানো হলে ডিটেইলস জানা যাবে আশা করছি।

যারা করোনাভাইরাসের এমন জরুরি সেবায় নিয়োজিত তাদের সতর্ক থাকার অনুরোধ জানান তিনি।

এর আগে গত বুধবার (১ এপ্রিল) রাত সাড়ে ১২টা থেকে ১টার মোহাম্মদপুরের কলেজগেটের বিল্লাহ ফার্মেসিতে মাথায় গামছা ও মুখে মাস্ক পরে চাপাতি নিয়ে দুই মিনিটে মধ্যে ডাকাতি করে চলে যায় দুর্বৃত্তরা।