অস্ত্রোপচারের সময় চিকিৎসকরা কেন সবুজ অ্যাপ্রন পরেন?

চিকিৎসকরা সাধারণত সাদা রঙের অ্যাপ্রন পরেন। তবে অস্ত্রোপচার করার সময় তারা সাদার পরিবর্তে সবুজ বা নীল রঙের অ্যাপ্রন পরেন।

প্রশ্ন হলো চিকিৎসকরা কেন সবুজ বা নীল রঙের অ্যাপ্রন পরেন।

আসলে সবুজ বা নীল রঙের অ্যাপ্রন পরার পেছনে রয়েছে মনস্তাত্ত্বিক বিষয়। অস্ত্রোপচার মানেই রক্তাক্ত ব্যাপার। অস্ত্রোপচার যত ছোট বা বড় যাই হোক না কেন রোগীর রক্তপাত হওয়াটা খুবই স্বাভাবিক।

আর অস্ত্রোপচারের সময় অ্যাপ্রনে রক্তের দাগ লাগাটা খুবই স্বাভাবিক। অস্ত্রোপচারের সময় যদি চিকিৎসকরা সাদা রঙের অ্যাপ্রন পরেন, তাতে রক্তের দাগ দেখতে খুবই খারাপ লাগে।
আর অপারেশন টেবিলে শুয়ে থাকা রোগীও সেটা দেখে আতঙ্কিত হয়ে উঠতে পারেন। তাই সবুজ বা নীল রঙের অ্যাপ্রন পরাই ভালো।

বিজ্ঞানসম্মত ভাবে, সবুজ বা নীল আসলে লালের পরিপূরক রং। সবুজ বা নীল রঙের উপর লাল রং মিশিয়ে দিলে, তা কালো হয়ে যায়। সবুজ বা নীল অ্যাপ্রনের উপর কালো রং খারাপ মানসিক প্রভাব ফেলে না। রক্ত বলে মনে না হওয়ায় রোগীও মানসিক ভাবে আতঙ্কিত হয়ে পড়েন না।

সে কারণে শুধু অস্ত্রোপচারের সময় চিকিৎসকদের অ্যাপ্রন, হাসপাতালের পর্দা ও রোগীর বিছানার চাদরও বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই সবুজ বা নীল রঙের হয়ে থাকে।