আদর্শ শিক্ষক জাতি গঠনের কারিগর: গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন বলেছেন, শিক্ষিত জাতি ছাড়া কোনো দেশের উন্নয়ন অভিষ্ঠ লক্ষ্য অর্জন করা সম্ভব নয়। আর একটি শিক্ষিত জাতি গঠনের মূল কারিগর একজন আদর্শ শিক্ষক। সে জণ্য শিক্ষিত জাতি গঠনের লক্ষ্যে সকল শিক্ষার্থীদের কাছে তিনি হবেন একজন আদর্শ শিক্ষক ও অভিভাবক। কখনও কখনও তিনি হবেন সুশৃঙ্খল জাতি বিনির্মাণের যোগ্য নেতা তৈরির আধুনিক কারিগর এবং শিক্ষার্থীর সুপ্ত প্রতিভা বিকাল উন্নয়নের এক অনিবার্য মাধ্যম।

শুক্রবার কুড়িগ্রামে সহকারী শিক্ষক নিয়োগ-২০১৮ এর যোগদানকৃত শিক্ষকদের পেশাগত দক্ষতা উন্নয়নের লক্ষ্যে ওরিয়েন্টেশন প্রশিক্ষণের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন প্রতিমন্ত্রী।

প্রতিমন্ত্রী বর্তমান সরকারের দুর্নীতিমুক্ত ও স্বচ্ছতার সাথে শিক্ষক নিয়োগের কথা উল্লেখ করে বলেন, শিক্ষার মানোন্নয়নে শিক্ষকসহ শিক্ষার সাথে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের দেশ-বিদেশে প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা হয়েছে। শিক্ষকদের সামাজিক মর্যাদা বৃদ্ধি ও আর্থিক উন্নয়নে সহকারী শিক্ষকদের বেতন স্কেল একধাপ উন্নয়নসহ প্রধান শিক্ষকদের দ্বিতীয় শ্রেণির মর্যাদা প্রদান করা হয়েছে। বর্তমানে প্রশিক্ষণের ওপর ভিত্তি করে প্রধান শিক্ষকদের বেতন গ্রেড ১১ ও ১২ এবং সহকারী শিক্ষকদের বেতন গ্রেড ১৪ ও ১৫ করে ২টি গ্রেড কার্যকর রয়েছে।

সম্প্রতি সকল ধরনের প্রধান শিক্ষককের বেতন গ্রেড ১১ এবং সহকারী শিক্ষককের বেতন গ্রেড ১৩ তে উন্নতি করা হয়েছে। এছাড়া সহকারী প্রধান শিক্ষক পদ সৃষ্টি কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন রয়েছে যাদের গ্রেড নির্ধারণ করা হয়েছে ১২ তম।

কুড়িগ্রাম জেলা প্রাথমিক শিক্ষা বিভাগ আয়োজিত ওরিয়েন্টেশন প্রশিক্ষণের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রশাসক মোছাঃ সুলতানা পারভীন।