মোদি শুধু সন্ত্রাসী নয়, সন্ত্রাসীদের গডফাদার: চরমোনাই পীর

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমীর মুফতী সৈয়দ মুহাম্মাদ রেজাউল করীম চরমোনাই পীর বলেছেন, মোদি শুধু সন্ত্রাসী নয়, সে সন্ত্রাসীদের গডফাদার ও মানবতার দুশমন।

বৃহস্পতিবার বেলা ১১টায় চরমোনাই বার্ষিক মাহফিলের দ্বিতীয় দিনে মাহফিল মঞ্চে অনুষ্ঠিত ওলামা-মাশায়েখ ও সুধী সমাবেশে সভাপতির বক্তব্যে উপরোক্ত কথা বলেন তিনি।

এদিকে, সভাপতির বক্তব্যে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমীর চরমোনাই পীর মুফতী সৈয়দ মুহাম্মাদ রেজাউল করীম বলেছেন, বাংলাদেশসহ বিশ্বের দেশে দেশে ইসলাম ও মুসলমানদের বিরুদ্ধে গভীর ষড়যন্ত্র চলছে।

ভারতের মুসলমানদের নিশ্চিহ্ন করতে মোদি সরকার গভীর ষড়যন্ত্রে মেমে উঠেছে। তিনি নির্যাতিত মুসলমানদের পাশে দাড়াতে মুসলিম উম্মাহর প্রতি আহবান জানান।

সভাপতির বক্তব্যে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমীর চরমোনাই পীর মুফতী সৈয়দ মুহাম্মাদ রেজাউল করীম বলেছেন, বাংলাদেশসহ বিশ্বের দেশে দেশে ইসলাম ও মুসলমানদের বিরুদ্ধে গভীর ষড়যন্ত্র চলছে। ভারতের মুসলমানদের নিশ্চিহ্ন করতে মোদি সরকার গভীর ষড়যন্ত্রে মেমে উঠেছে। তিনি নির্যাতিত মুসলমানদের পাশে দাড়াতে মুসলিম উম্মাহর প্রতি আহবান জানান।

সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন মালয়েশিয়া শরীয়াহ বোর্ডের সাবেক প্রধান মুফতী ও মালয় প্রধানমন্ত্রীর সচিব শায়খ দাতু ওমাম জাহিদী বিন ওয়াসতেহ, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের প্রেসিডিয়াম সদস্য প্রিন্সিপ্যাল মাওলানা মোসাদ্দেক বিল্লাহ আল মাদানী, নায়েবে আমীর মাওলানা আবদুল হক আজাদ, আল্লামা নূরুল হুদা ফয়েজী, অধ্যক্ষ হাফেজ মাওলানা ইউনুছ আহমাদ, শায়খ জাকারিয়া ইসলামিক রিসার্চ সেন্টারের প্রতিষ্ঠাতা মহাপরিচালক মুফতী মিযানুর রহমান সাঈদ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের অধ্যাপক ড. মাইমুল আহসান খান।

আরও উপস্থিত ছিলেন, ড. আফম খালিদ হোসাইন, ফরায়েজী আন্দোলনের সভাপতি মাওলানা আব্দুল্লাহ মোহাম্মাদ হাসান পীর সাহেব বাহাদুরপুর, মাওলানা সোহরাব আলী খান কাসেমী (ভারত), গাজী আতাউর রহমান, মাওলানা হাফিজুর রহমান সিদ্দিক কুয়াকাটা, মোকামিয়ার পীর মাওলানা মাহমুদুল হাসান ফেরদৌস, উজানীর পীর মাওলানা এহতেরামুল হক, মিডিয়া ব্যক্তিত্ব মাওলানা উবায়দুর রহমান খান নদভী, জামিয়া শারইয়্যা মালিবাগের সাবেক ভাইস প্রিন্সিপ্যাল আল্লামা আনোয়ার শাহ, জামিয়া কারীমিয়ার নির্বাহী মুহতামীম মাওলানা মকবুল হোসাইন, যাত্রাবাড়ী মাদরাসার প্রধান মুফতী মাওলানা সাদিকুর রহমান, মাওলানা আসাদুল্লাহ আল গালিব (সৌদি আরব), মাওলানা আবদুর রহমান (আমেরিকা), শায়খুল হাদীস মাওলানা আবদুর রাজ্জাক, মুফতী হাবিবুর রহমান মিছবাহ, মুফতী ওয়ালীউল্লাহ, শায়খুল হাদীস আব্দুল আখির, মাওলানা খাজা আহমাদুল্লাহ, প্রিন্সিপ্যাল মাওলানা শেখ ফজলে বারী মাসউদ প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, মুসলমানদের রক্তে রঞ্জিত ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে এদেশে এনে মুজিব শতবর্ষ পালনকে প্রশ্নবিদ্ধ না করতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি অনুরোধ জানান।